Home / মিডিয়া নিউজ / টাঙ্গাইলের সাইফুর রহমান থেকে যেভাবে হলেন ঢাকাই ছবির অমিত হাসান

টাঙ্গাইলের সাইফুর রহমান থেকে যেভাবে হলেন ঢাকাই ছবির অমিত হাসান

অমিত হাসান। বাংলা চলচ্চিত্রে নায়ক-খল নায়ক দুই জায়গাতেই যিনি সমান দক্ষতার পরিচয় দিয়ে

আসছেন তিনি।আজ (৯ সেপ্টেম্বর) এই জনপ্রিয় নায়কের জন্মদিন। অমিত হাসান যার প্রকৃত নাম

সাইফুর রহমান। কলেজ পড়াকালীন তার এক বান্ধবী তার নাম রাখেন অমিত হাসান। ১৯৬৮ সালের

৯ সেপ্টেম্বর টাঙ্গাইলের আদালত পাড়ায় জন্মগ্রহন করেন তিনি। ১৯৮৬ সালে নতুন মুখের সন্ধানের

মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অমিত হাসানের সম্পৃক্ততা।এরপর ১৯৯০ সালে ছটকু আহমেদ পরিচালিত ‘চেতনা’ সিনেমার মাধ্যমে রুপালী পর্দায় তার অভিষেক ঘটে।তবে মনোয়ার খোকন পরিচালিত ‘জ্যোতি’ সিনেমার মাধ্যমে পান সফলতা। এরপর তাকে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। একের পর এক ‘উজান ভাটি’, ‘শেষ ঠিকানা’, ‘আত্মসাৎ’, ‘আত্মত্যাগ’, ‘তুমি শুধু তুমি’, ‘জিদ্দী’, ‘ভালোবাসার ঘর’, ‘হিংসা’ ‘জ্যোতি’ ও ‘ভুলোনা আমায়’ মতো ব্যবসা সফল চলচ্চিত্র উপহার দিয়েছেন তিনি।এসব চলচ্চিত্রে তার বিপরীতে মৌসুমী, শাবনূর, শাহনাজ ও পপি অভিনয় করেছেন।

অমিত হাসান বর্তমানে খলনায়ক চরিত্রে অভিনয়ের প্রতি সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন।ডিজিটাল পদ্ধতিতে নির্মিত এফডিসিকেন্দ্রিক প্রথম চলচ্চিত্র শাহীন সুমন পরিচালিত ‘ভালোবাসার রং’-এ তিনি প্রথমবার খলনায়ক চরিত্রে অভিনয় করেন। এছাড়া কয়েকটি ছবিতে খলনায়কের অভিনয় করে তিনি বেশ প্রশংসিত হয়েছেন।

অমিত হাসানের ত্রিশ বছর ক্যারিয়ার পেরিয়ে প্রায় ৩০০ চলচ্চিত্রের অভিনয় করছেন।বর্তমানে নির্মাণেও মনোযোগী হচ্ছেন এই অভিনেতা।

অমিত হাসান অভিনীত সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমা হচ্ছে দেলোয়ার জাহান ঝন্টুর ‘তুমি আছো তুমি নাই’। আগামী ঈদে মুক্তি পাবার কথা রয়েছে শাহীন সুমনের ‘বিদ্রোহী’ এবং শামীম আহমেদ রনির ‘বিক্ষোভ’। এছাড়াও তিনি ব্যস্ত আছেন রকিবুল আলম রকিবের ‘সীমানা’, ‘ইয়েস ম্যাডাম’, সৈকত নাসিরের ‘মাসুদ রানা’ ও অপূর্ব রানা’র ‘যন্ত্রণা’ সিনেমার কাজ নিয়ে।

Check Also

যে কারণে সিনেমায় এসেছিলেন হুমায়ূন ফরীদি

মঞ্চ থেকে চলচ্চিত্র অভিনয়ের সবখানে তিনি রাজত্ব করেছেন দুর্দান্ত প্রতাপে। কয়েক দশক অভিনয়ে তিনি মাতিয়ে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.