Home / মিডিয়া নিউজ / অপেক্ষার অবসান,উচ্ছ্বসিত ‘সাহস’ নির্মাতা-শিল্পীরা

অপেক্ষার অবসান,উচ্ছ্বসিত ‘সাহস’ নির্মাতা-শিল্পীরা

তরুণ নির্মাতা সাজ্জাদ খানের প্রথম সিনেমা ‘সাহস’ ছবিটি মুক্তি পাবে কি না তা নিয়ে তৈরি হয়েছিল

সংশয়। অনেকদিন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সরবোর্ডেও আটকে ছিল ছবিটি। অবশেষে মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর)

‘সাহস’ ছবিটি সেন্সর ছাড়পত্র পেয়েছে। ছাড়পত্রের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নির্মাতা সাজ্জাদ খান নিজেই।

তিনি বলেন,তিনি বলেন, ‘চলতি বছরের ৬ সেপ্টেম্বর সিনেমাটি সেন্সর বোর্ডের সদস্যরা দেখেন। তখন

তাঁরা ছোট দুটি অংশে সংশোধন করতে বলেন। তারপরই আমরা সংশোধন করে জমা দিই। গত মঙ্গলবার আমাদের ফোনে জানানো হয়, সিনেমাটি সেন্সর পেয়েছে।এরপর এটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তিতে আর কোনো বাধা রইলো না। আমাদের জন্য এটা খুবই খুশির সংবাদ। এখন সিনেমাটি কীভাবে মুক্তি দেওয়া যায়, সেটি নিয়ে ভাবছি। আমাদের পরিকল্পনা রয়েছে, আগামী নভেম্বরে মুক্তি দেব।’

এর আগে,গত জুন মাসে ছবিটি বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডে জমা পড়ে।এরপর সেপ্টেম্বর মাসে সেন্সর বোর্ডের সদস্য দেখেন এবং প্রদর্শনযোগ্য নয় বলে বিবেচিত হয় সেন্সর বোর্ডের সদস্য কাছে ছবিটি।আগস্ট মাসে ‘সাহস’ ছবির সংশ্লিষ্টরা আপিল করেন। আপিলও নাকচ হয়।

সিনেমাটির সংশ্লিষ্টদের সুযোগ ছিল ছবিটির অল্প কিছু দৃশ্য সংশোধনের করে সিনেমাটি আবার সেন্সর বোর্ডে জমা দেয়ার। সেই সুযোগটি নেন সাহসের প্রযোজক।এরপর দ্বিতীয় দফায় ছবিটি দেখার পর এর কিছু অংশ সংশোধন করে অবশেষে মুক্তির অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

গেল বছরের নভেম্বর, ডিসেম্বর মাসে বাগেরহাটে ‘সাহস’-এর শুটিং করেছিলেন সাজ্জাদ খান। এর প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী নাজিয়া হক অর্ষা ও মোস্তাফিজুর নূর ইমরান। আরও অভিনয় করেছেন থিয়েটার রেপার্টোরি বাগেরহাটের একঝাঁক শিল্পী। স্থানীয় থিয়েটারের এসব শিল্পীদের অডিশিনের মাধ্যমে বাছাই করা হয়। প্রায় ৫০ জন তরুন এতে অভিনয় করেছেন।

Check Also

যে কারণে সিনেমায় এসেছিলেন হুমায়ূন ফরীদি

মঞ্চ থেকে চলচ্চিত্র অভিনয়ের সবখানে তিনি রাজত্ব করেছেন দুর্দান্ত প্রতাপে। কয়েক দশক অভিনয়ে তিনি মাতিয়ে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.