Home / মিডিয়া নিউজ / এসব এখন অতীত, অতীত নিয়ে ভাবলে শুধু সময়ই নষ্ট হয় : শাকিব

এসব এখন অতীত, অতীত নিয়ে ভাবলে শুধু সময়ই নষ্ট হয় : শাকিব

শাকিব খান অভিনীত ভাইজান এলো রে ছবির কাজ শুরু হচ্ছে আগামীকাল। এতে অংশ নিতে

কলকাতা যাচ্ছেন তিনি। এদিকে ২২ ফেব্রুয়ারি অপু বিশ্বাসের সঙ্গে দাম্পত্যজীবনের ইতি টেনেছেন

এই নায়ক। কাজ ও বিবাহ বিচ্ছেদ নিয়ে কথা হয় তার সঙ্গে ভাইজান এল রে ছবির কাজে কলকাতা

যাচ্ছেন। শুটিং শুরু করবেন থেকে ২ ফেব্রুয়ারি নায়ক-নায়িকার লুক নিয়ে কাজ হবে। ৩ ফেব্রুয়ারি

থেকে শুটিং। প্রথম সপ্তাহে কলকাতায়, এরপর কাজ হবে যুক্তরাজ্যে। ছবিটি পরিচালনা করছেন জয়দীপ মুখার্জি।

এই ছবিতে আপনার বিপরীতে আছেন শ্রাবন্তী। আবার পরিচালকও জয়দীপ। শিকারি ছবির মতোই কি আরেকটি ধামাকা আশা করা যায়?

শিকারি ব্যবসাসফল ছবি। এটি দেশের গণ্ডি পেরিয়ে বিভিন্ন দেশের বাংলা ভাষাভাষী দর্শকের মধ্যে সাড়া ফেলেছিল। ফলে সেই ছবির পরিচালক-নায়ক-নায়িকা আবার একসঙ্গে হলে, ধামাকা তো হতেই পারে। বাকিটা সময়ই বলে দেবে।

টানা কাজ করে যাচ্ছেন। বিশ্রাম দারকার আছে বলে মনে করেন না?
অবশ্যই করি। এখন একটু অবসর দরকার। আমাকে একটু স্থির হতে হবে। আন্তর্জাতিক মানের কাজের জন্য প্রস্তুতি দরকার। তাই কাজের ফাঁকে মাঝেমধ্যে একটু বিরতিতে যেতে হবে। নতুন সিদ্ধান্ত নিয়েছি, এখন থেকে শুধু উত্সবগুলো ধরে কাজ করব। তবে এর আগে হাতে থাকা কাজগুলো শেষ করে নেব।

ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে একটু কথা বলতে চাই। অপুর সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদের ব্যাপারে কী বলবেন?

এসব এখন অতীত। অতীত নিয়ে ভাবলে শুধু সময়ই নষ্ট হয়। আর সময় নষ্ট করা ঠিক নয়। বর্তমান সময়ে আমার কাজ দিয়ে ইন্ডাস্ট্রিকে কতটুকু এগিয়ে রাখতে পেরেছি, কীভাবে আরও এগিয়ে নেওয়া যায়-তা নিয়ে ভাবতে চাই, কাজ করতে চাই। তাই এসব নিয়ে আর কিছুই বলতে চাই না।শাকিব খান অভিনীত ভাইজান এলো রে ছবির কাজ শুরু হচ্ছে আগামীকাল। এতে অংশ নিতে

কলকাতা যাচ্ছেন তিনি। এদিকে ২২ ফেব্রুয়ারি অপু বিশ্বাসের সঙ্গে দাম্পত্যজীবনের ইতি টেনেছেন

এই নায়ক। কাজ ও বিবাহ বিচ্ছেদ নিয়ে কথা হয় তার সঙ্গে ভাইজান এল রে ছবির কাজে কলকাতা

যাচ্ছেন। শুটিং শুরু করবেন থেকে ২ ফেব্রুয়ারি নায়ক-নায়িকার লুক নিয়ে কাজ হবে। ৩ ফেব্রুয়ারি

থেকে শুটিং। প্রথম সপ্তাহে কলকাতায়, এরপর কাজ হবে যুক্তরাজ্যে। ছবিটি পরিচালনা করছেন জয়দীপ মুখার্জি।

এই ছবিতে আপনার বিপরীতে আছেন শ্রাবন্তী। আবার পরিচালকও জয়দীপ। শিকারি ছবির মতোই কি আরেকটি ধামাকা আশা করা যায়?

শিকারি ব্যবসাসফল ছবি। এটি দেশের গণ্ডি পেরিয়ে বিভিন্ন দেশের বাংলা ভাষাভাষী দর্শকের মধ্যে সাড়া ফেলেছিল। ফলে সেই ছবির পরিচালক-নায়ক-নায়িকা আবার একসঙ্গে হলে, ধামাকা তো হতেই পারে। বাকিটা সময়ই বলে দেবে।

টানা কাজ করে যাচ্ছেন। বিশ্রাম দারকার আছে বলে মনে করেন না?

অবশ্যই করি। এখন একটু অবসর দরকার। আমাকে একটু স্থির হতে হবে। আন্তর্জাতিক মানের কাজের জন্য প্রস্তুতি দরকার। তাই কাজের ফাঁকে মাঝেমধ্যে একটু বিরতিতে যেতে হবে। নতুন সিদ্ধান্ত নিয়েছি, এখন থেকে শুধু উত্সবগুলো ধরে কাজ করব। তবে এর আগে হাতে থাকা কাজগুলো শেষ করে নেব।

ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে একটু কথা বলতে চাই। অপুর সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদের ব্যাপারে কী বলবেন?

এসব এখন অতীত। অতীত নিয়ে ভাবলে শুধু সময়ই নষ্ট হয়। আর সময় নষ্ট করা ঠিক নয়। বর্তমান সময়ে আমার কাজ দিয়ে ইন্ডাস্ট্রিকে কতটুকু এগিয়ে রাখতে পেরেছি, কীভাবে আরও এগিয়ে নেওয়া যায়-তা নিয়ে ভাবতে চাই, কাজ করতে চাই। তাই এসব নিয়ে আর কিছুই বলতে চাই না।

Check Also

যে কারণে সিনেমায় এসেছিলেন হুমায়ূন ফরীদি

মঞ্চ থেকে চলচ্চিত্র অভিনয়ের সবখানে তিনি রাজত্ব করেছেন দুর্দান্ত প্রতাপে। কয়েক দশক অভিনয়ে তিনি মাতিয়ে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.